সবাই চলে যাওয়ার পর একা ফ্ল্যাটে বসে মৌশি এই

সবাই চলে যাওয়ার পর একা ফ্ল্যাটে বসে মৌশি এই এক বছরের প্রত্যেকটা ঘটনা। আরিয়ান আম্মার

এবং নিজের ব্যাবহারের কথাও সব বসে বসে ভাবে ও৷ আজ আর্শির একটা কথা বারবার ভাবাচ্ছে ওকে।

তুমি নিজের পার্টনারকে যতটা কেয়ার, ভালোবাসা, সম্মান দিবে। তোমার পার্টনার তোমাকে ততটুকুই সম্মান,

কেয়ার, ভালোবাসা দিবে। আজ মৌশি ভাবছে সত্যি কী ও নিজে এসব আরিয়ানের থেকে পাওয়ার মতো কিছু

আরও ভালোবাসার গাল্প পেতে ভিজিট করুউঃ bentrick.xyz

সবাই চলে যাওয়ার পর একা ফ্ল্যাটে বসে মৌশি এই

করেছে আরিয়ানের জন্য। বিয়ে না মানতে পারায় প্রথম প্রথম আরিয়ানকে দেখলেও রাগ হতো ওর। আরিয়ান কিছু

বলতে আসলেও ততটা গুরুত্ব দিয়ে তার কথা শুনেনি। আরিয়ান ভুলেক্রমে কাছে চলে এলেও নিজেকে আড়ষ্ট

করে রাখতো মৌশি। আচ্ছা বিয়ের প্রথম প্রথম ওর অবহেলা অবজ্ঞা বিরক্তির জন্যেই কী আরিয়ান এমন ব্যাবহার করে

ওর সাথে? আসলে কী তাহলে এটাই সত্যি মৌশি নিজে যেমন ব্যাবহার দিয়েছে আরিয়ানকে। আরিয়ান নিজেও

কী এখন তাই করছে ওর সাথে? কিন্তু ও তো তখন ঐ প্রতারকটার ঘোরে ছিলো। বুঝতে পারেনি পবিত্র সম্পর্কের মূল্য,

নিপুণ শান্তি। অনুভব করতে পারেনি কতবড় ভুল পথে হেটে বেরিয়েছে মৌশি। যখন নিজের ভুল বুঝতে পেরেছে।

তখন থেকেই নিজের অজান্তে আরিয়ানের একটু এ

টেনশন পাওয়ার জন্য ছটফট করেছে মৌশি। আরিয়ানের নিশ্চুপতা ওকে কষ্ট দেয় সেটা বুঝতে পেরেছিলো যখন ওর বাবা মারা যায়। তখন থেকেই ধীরে ধীরে দূর্বল হয়ে পরে মৌশি আরিয়ানের উপর। বাস্তবতা বুঝতে পারে।

হ্যাঁ এখনও মাঝেমধ্যে কষ্ট হয় ওর এরেনের জন্য তবে সেটা ক্ষণিকের জন্যেই। হয়তো সেটা শুধুই একটা সম্পর্কের মায়া। কিন্তু আরিয়ানকে সত্যি নিজের ভবিষ্যৎ ভাবে মৌশি। এখন আর এরেনকে পাওয়ার জন্য মন কাঁদেনা।

কাঁদে আরিয়ানের সামান্য অবহেলায়। তবে ও মানছে আরিয়ান যে ওর খেয়াল রাখেনি এমন নয়। দায়িত্ব পালন করেনি এমন নয়। করেছে যা প্রয়োজন স্ত্রীর জন্য করার সে সব করেছে আরিয়ান। কিন্তু মুখ ফুটে একটা কথাও সে বলেনা।

সবাই চলে যাওয়ার পর একা ফ্ল্যাটে বসে মৌশি এই

মৌশির এখানেই যত সমস্যা। হ্যাঁ জানে মৌশি নিজেও অন্যায় করেছে। কিন্তু ইচ্ছে করেতো কিছুই করেনি। ও জানতোই না ওর সাথে এমন কিছু হবে।

তাই বলে আরিয়ান সেসব ধরে এভাবে বসে থাকবে? কেমন মানুষ আরিয়ান বৌ অন্য ছেলেকে ভালোবাসে সেটা যেনেও একদিন একটা প্রশ্ন পর্যন্ত করেনি?

প্রায় এক বছর পর সেই ব্যাপারে মুখ খুললো কিন্তু তেমন কিছুই বলেনি যেমন ও চলে গেলেও আরিয়ানের কিছুই হবেনা। এমন ছেলে মানুষ মৌশি এই জীবনে দেখেনি! এতো হার্টলেস ফিলিংলেস মানুষ এভার।

About admin

Leave a Reply

Your email address will not be published.